buniyadi honey

বুনিয়াদী মধু

buniyadi mixed flower honey
Buniyadi lychee flower honey
buniyadi honey

মধু নিয়ে আমাদের সবারই কম বেশী অভিজ্ঞতা রয়েছে। আর খাঁটি মধুর জন্য আমাদের নিরন্তর খুঁজে ফেরা যেন এক নিয়তির মত এখন। কোথায় পাবেন একদম খাঁটি মধুটি সে বিষয়ে আলোচনায় পরে আসছি। আপনি কি জানেন পৃথিবীতে সকল খাবারের মধ্যে শুধুমাত্র মধুতেই মানুষের বেঁচে থাকার সবকটি উপাদান বিদ্যমান। হাজারো স্বাস্থ্যগুণের জন্য মধুর চাহিদা বরাবরই আকাশ ছোঁয়া।

পবিত্র কোরান শরীফে “নাহল” বা মৌমাছি নিয়ে একটি সূরা রয়েছে। প্রিয় মহানবী হযরত  মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “মধুতে আরোগ্য নিহিত আছে”- সহিহ বুখারীঃ ৫২৪৮।

শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে মধুর চেয়ে শ্রেষ্ট কিছু আর নেই। কারণ এন্টি-অক্সিডেন্টে ভরপুর মধু বলতে গেলে প্রায় সকল রোগ থেকেই শরীরকে দূরে রাখে।  চলুন জেনে নেয়া যাক মধুতে কি কি উপাদান রয়েছে যা আমাদের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

মধুর যত পুষ্টি উপাদান

মধু স্বাস্থ্য উপাদানে ভরপুর একটি খাবার। প্রায় ৫০ টি খাদ্য উপাদানের যেন একটি সুষ্ঠ সংমিশ্রণ এই মধু। চলুন  ১০০ গ্রাম মধুর পুষ্টিমানের একটি ছকের দিকে লক্ষ্য করি।

Honey Table

পুষ্টিমানের এই চিত্রটি থেকেই ধারণা করা যায় মধুতে ভিটামিনের সুষম সংমিশ্রণ রয়েছে। মানবদেহ গঠনের গুরুত্বপূর্ণ উপাদানের উপস্থিতি পাওয়া যায় মধুতে। এদের মধ্যে ডায়াস্টেজ, ইনভার্টেজ, সেকারোজ, লাইপেজ, ক্যাটালেক্স উল্লেখযোগ্য। এইসব এনজাইম বিভিন্ন খনিজ লবণ যেমন, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্লোরিন, আয়োডিন, সোডিয়ামের সাথে যুক্ত থাকে।

এছাড়াও মধুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন। যেমন, ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, বি-১, বি-২, বি-৩, বি-৫, বি-৬ ইত্যাদি। মধুতে বেশ বড় অংশ জুড়ে রয়েছে সুগার বা চিনি। এই সুগারের ভেতরে রয়েছে ডেক্সট্রোজ, ম্যালটোজ, লেভিউলোজ এবং গ্লুকোজ।

এতে এমাইনো এসিডের উপস্থিতি পাওয়া যায়। আর মধুতে চর্বি নেই বললেই চলে। তাই শরীরের জন্য দরকারী সব উপাদানের সুষম মিশ্রণের ফলে আমরা যদি কোন খাবারকে শ্রেষ্ট বলে গণ্য করি তাহলে সেটা হবে মধু।

এইসব তো গেলো মধুর পুষ্টিগুণের কথা। চলুন মধু খেলে কি কি উপকার পাওয়া যায় সে সম্বন্ধে জানি।

মধুর উপকারিতা

আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য মধুর উপকারিতার কথা বলে শেষ করা যাবে না। তবুও একটু চেষ্টা করে দেখা যাক।

  • মধু হজমে সহায়তা করে। পেটের সমস্যায় যারা নিয়মিতই সমস্যায় থাকেন তাদের জন্য মধু অনেকটা মহৌষধের মতো কাজ করে। মধুতে ডেক্সট্রিন নামক এক ধরণের উপাদান থাকায় তা হজম শক্তি বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে।
  • মধুতে চর্বি নেই। আর মধু খাওয়ার ফলে যেহেতু হজমের শক্তি বৃদ্ধি পায় তাই শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে মধু কাজ করে ম্যাজিকের মত। নিয়ম মেনে মধু খেলে অতিরিক্ত ওজন থেকে আপনি সহজেই পাবেন মুক্তি।
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এটি ভীষণ কার্যকর। তাছাড়া মধুতে এন্টি-অক্সিডেন্ট প্রচুর পরিমাণে থাকায় ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে।
  • আপনার কি রাতে ঘুমাতে সমস্যা হয়? তাহলে ঘুমানোর আগে এক চামচ মধু খেয়ে দেখতে পারেন। ঘুম যেমন ভালো হবে তেমনই সকালটা শুরু হবে একদম সতেজ ভাব নিয়ে।
  • দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে মধু ভালো উপকারে আসে। চোখের সুস্থতায় এটি বেশ ভালো কাজ করে।
  • অনেকে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগে থাকেন। যার দরুণ দেখা দিতে পারে বিভিন্ন রকম শারীরিক সমস্যা। কিন্তু চিন্তা কি? মধু খেয়ে দেখুন তো কাজ হয় কিনা।
  • উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা জীবনের একটা সময়ে এসে ভয়ংকর রূপ ধারণ করতে পারে। মধুর সাথে রসুনের রস মিশিয়ে দৈনিক দুইবার খেলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে।
  • আপনি রক্তশূন্যতায় ভুগে থাকলেও পরামর্শ থাকবে মধু খেয়ে দেখতে পারেন। কারণ দেহে রক্ত উৎপাদনের জন্য আয়রণের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। .৪২ মিলিগ্রাম আয়রণ থাকে প্রতি ১০০ গ্রাম পরিমাণ মধুতে।
  • বৈশ্বিক মহামারির ভেতর দিয়ে আমাদের সবারই ভয়াবহ সময় গিয়েছে। করোনার সময়টাতে অনেকেই ভুগেছেন ফুসফুসের নানা সমস্যায়। করোনার দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব থেকে যায় শরীরে। ফুসফুসের বিভিন্ন সমস্যায় মধু কাজ করে অনেকট ম্যাজিকের মত। শ্বাসকষ্টের মত রোগে ভুগে থাকলে মধু বেশ ভালো কাজে দেয়।
  • অনেক পুরুষ যৌন দূর্বলতায় ভুগে থাকেন। এর অনেক ধরণের কারণ থাকতে পারে। কিন্তু নিয়মিত মধু খাওয়া উপকারে আসতে পারে অনেকটাই।
  • পবিত্র রমজান মাসের রোজার শেষে ইফতারে এক গ্লাস গরম দুধের সাথে দুই চামচ মধু মিশিয়ে খেলে শরীরের শক্তি ফিরে পাবেন দ্রুত। সারাদিনের কাজের ক্লান্তি দূর করতেও মধু দিয়ে শরবত অনন্য।

এমন হাজারো উপকারিতার জন্য বরাবরই মধুকে অত্যন্ত কাঙ্ক্ষিত খাদ্য হিসেবে গণ্য করা হয়। তাই মধু খাওয়ার জন্য দরকার নেই কোন উপলক্ষ্যের।

আমরা গুণগত মানের দিক থেকে কোনভাবেই সমঝোতায় বিশ্বাসী নই।

এখন আসছি সেই আলোচিত প্রশ্নে।

কোথায় পাবো আসল মধু?

বুনিয়াদী আপনাদের কথা মাথায় রেখেই নিয়ে এসেছে বাজারের সবচেয়ে খাঁটি মধুটি।

buniyadi honey
buniyadi honey
Buniyadi Honey

বুনিয়াদী মিশ্র ফুলের মধু


বুনিয়াদী লিচু ফুলের মধু


বুনিয়াদী কালোজিরা ফুলের মধু

আমরাই কেন?

কারণ,  বুনিয়াদী লিচু ফুলের মধু কোন রকমের রাসায়নিক বা ক্ষতিকর উপাদান যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর তা ব্যবহার করা হয় না। পুষ্টিতে ভরপুর বুনিয়াদী মধু প্রাকৃতিক ভাবে আহরণকৃত। ১০০% বিশুদ্ধ এবং নিরাপদ। মধু একটি প্রাকৃতিক ঔষধ। বুনিয়াদী লিচু ফুলের মধু গুণগত মানে কোন একদম আপসহীন।

অর্ডার করুনঃ

আমাদের ওয়েবসাইটঃ www.buniyadi.com

আমাদের ফেইসবুক পেইজঃ www.facebook.com/buniyadibd

হটলাইনঃ 09638-777999

Please follow and like us: