buniyadi mustard oil

বুনিয়াদী কাঠের ঘানি ভাঙা সরিষার তেল

Buniyadi Mustard Oil

সরিষার তেল প্রতিটি বাড়ির রান্নাঘরের একটি জরুরী অনুষঙ্গ। এটি রান্নায়, ভর্তা বানাতে এমনকি রূপচর্চার জন্যেও ব্যবহৃত হয়। সরিষার তেলের ঝাঁজ ও গন্ধ নিমিষেই চাঙ্গা করে দিতে পারে আপনাকে।প্রাচীনকাল থেকেই আমাদের মহাদেশে সরিষার তেল ব্যবহারের প্রচলন ছিল। কিন্তু সয়াবিন তেলে বিবিধ ব্যবহার এবং সহজলভ্যতার কারণে সরিষার তেলে রান্নার সেই চল আমরা হারাতেই বসেছিল। প্রতিদিন সরিষার তেলে রান্না করা খাবার খেলে যে উপকার পাওয়া তা অন্য কোনো তেলের সাথে তুলনা করা যায় না। শরীরের এবং ত্বকের নানাবিধ উপকারের ফলে সরিষার তেলের বহুবিধ ব্যবহার রয়েছে।

সরিষার তেল যেমন খাবারের স্বাদ বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য আরও ভালো রাখার জন্য ব্যবহার করা হয় তেমনি ত্বক ও চুলের যত্ন করতেও এই তেলের প্রয়োজনীয়তার শেষ নেই। চলুন জেনে নেওয়া যাক সরিষার তেলের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে।

সরিষার তেলের পুষ্টিগুণ

সরিষার তেল মনোআনস্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং প্রদাহ বিরোধী উপাদানে সমৃদ্ধ। এছাড়াও সরিষার তেল ওমেগা-৩, ওমেগা-৬ ফ্যাটি এসিড, এন্টি অক্সিডেন্ট এবং বিভিন্ন ধরনের খনিজ পদার্থে ভরপুর। এতে খুব অল্প পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট বা সম্পৃক্ত চর্বি রয়েছে। সরিষার তেলের পুষ্টিগুণে ভরপুর হওয়ায় এটি ব্যবহারের ফলে নানাবিধ উপকার পাওয়া যায়।

সরিষার তেলের উপকারিতা

  • সরিষার তেল অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদানে সমৃদ্ধ। ত্বকে মালিশ করার ফলে ত্বকের ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন রোধ হয় এবং ত্বক হয় উজ্জ্বল।
  • অনেকে মুখের দাগের জন্য অস্বস্তিতে ভোগেন। ব্রণের জন্য দাগের কারণেও অনেকে সমস্যায় ভুগে থাকেন। নিয়মিত ত্বকে এই তেল মালিশ করার ফলে ত্বকের দাগ দূর হয়।
  • চুল পাকার একটি বার্ধক্যজনিত সমস্যা হলেও চুল পেকে গেলে অনেকেই মনঃক্ষুণ্ণ হন। প্রতিরাতে ঘুমোতে যাবার আগে সরিষার তেল চুলে মালিশ করা যেতে পারে। এতে চুল পাকা রোধ হয়। কারণ এই তেলে রয়েছে বিটা ক্যারোটিন। এটি নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে এবং চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। চুল পড়া রোধ করতেও সরিষার তেলে রয়েছে কার্যকরী উপাদান।
  • বাতের ব্যথা সহ বিভিন্ন রোগে সরিষার তেলের উপর বিশ্বাস করতে পারেন। এই তেল প্রদাহজনিত উৎসেচক এর ক্রিয়া রোধ করে। যার ফলে ব্যথা থেকে আরাম পাওয়া যায়।
  • পাকস্থলীর পাচক রস উদ্দীপিত করার মাধ্যমে ক্ষুধা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে সরিষার তেল।
  • যারা হার্টের সমস্যায় ভুগে থাকেন তাদের জন্য কোলেস্টেরল একটি ভয়াবহ নাম। যা সয়াবিন তেলে প্রচুর পরিমাণে রয়েছে। কিন্তু সরিষার তেলে এই কোলেস্টেরলের মাত্রা কম থাকায় রান্না করার ফলে অন্য তেলের তুলনায় এটি উপকারে আসে।
  • এই তেল রক্ত সঞ্চালনের প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে এবং যাতে বাধাপ্রাপ্ত না হয়, তার দিকে নজর রাখে। সারাদিনের ক্লান্তি ভরা পেশিগুলো উজ্জীবিত রাখে। সরিষার তেল রক্তে লোহিত রক্ত কণিকা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।
  • দাঁতের মাড়ির ব্যথায় সরিষার তেল কাজে দেয়। এমনকি এই তেলে থাকা প্রয়োজনীয় ভিটামিন শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।
  • সর্দি-কাশি একটি চিরায়ত সমস্যা। ঠান্ডা লাগা থেকে মুক্তি পেতে দুই হাতে তেল নিয়ে ভালো করে বুকে মালিশ করলে উপকার পাওয়া যায়। শিশুদের বুকে বা পায়ের তলায় সরিষার তেলের মালিশ সর্দি-কাশি থেকে আরাম হয়।
  • এমনকি ঘরে পোকামাকরের উপদ্রপ থাকলে সরিষার তেল ব্যবহার করে দেখতে পারেন। কারণ পোকামাকর সরিষার তেলের ঝাঁজ থেকে দূরে থাকে।

এমন আরো নানাবিধ উপকারের কারণে সরিষার তেল অনন্যা তেলের তুলনায় অনন্য। কিন্তু বাজারের ভেজাল সরিষার তেলের কারণে খাঁটি সরিষার তেল খুঁজে বের করাই একটা চ্যালেঞ্জ। নিশ্চয়ই ভাবছেন, 

এই খাঁটি তেলটি আসলে পাবেন টা কোথায়?

আমাদের উত্তর একটাই! 

4.5/5

বাজারে প্রচলিত সরিষার তেলের বোতল প্রায় সবই প্লাস্টিকের বোতলে পাওয়া যায়। যাতে রয়েছে প্রচুর শরীরের জন্য ক্ষতিকর উপাদান। কিন্তু বুনিয়াদি আপনার স্বাস্থ্যে নিয়ে কোনো ধরণের ঝুঁকি মানতে নারাজ। প্লাস্টিকের বোতলের ক্ষতিকর প্রভাবে অনেক ধরণের শারীরিক সমস্যার দেখা দিতে পারে। তাই আমরা নিয়ে এসেছি স্বাস্থ্যের জন্য সবচাইতে সুরক্ষিত ‘ফুড গ্রেড সেইফ’ কাঁচের বোতল। 

ভেজাল তেলের বাজারে স্বাস্থ্যকর ভোজ্য তেল খোঁজা এক বিরাট কষ্টকর ব্যাপার। কিন্তু বুনিয়াদি এই আশ্বাস আপনাকে দিতে পারে যে আমাদের সরিষার তেল সম্পূর্ণ নিজস্ব তত্ত্বাবধানে ঘানিতে ভাঙা হয়।

মান, গুণ ও স্বাদের দিক থেকে সর্বাধিক উন্নত সরিষার তেল টা আপনার হাতের নাগালে পৌঁছে দেওয়াটাই বুনিয়াদি পরিবারের একমাত্র লক্ষ্য।

খাঁটি মানের ঘানি ভাঙা সরিষার তেলের নিশ্চয়তা যখন আছে তাহলে আর অর্ডার করতে দেরি কিসের?

Please follow and like us: